India & World UpdatesHappenings

ডিমা হাসাও বনধ শান্তিতে
Bandh peaceful in Dima Hasao

১১ ফেব্রুয়ারিঃ নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে আহূত ১২ ঘণ্টার বনধে স্তব্ধ হয়ে পড়ল ডিমা হাসাও জেলা। বিঘ্নিত হয় স্বাভাবিক জনজীবন। জেলার সর্বত্র সোমবার সকাল থেকে বন্ধ হয়ে পড়ে যানবাহন চলাচল। দরজা খোলেনি কোনও ব্যবসা প্ৰতিষ্ঠানের। সদর শহর হাফলং সহ মাইবাং, মাহুর, লাংটিং, হারাঙ্গাজাও, উমরাংশু— জেলার সব অংশে বনধ ছিল সর্বাত্মক।

স্কুল-কলেজ, ব্যাঙ্ক, পোস্ট অফিস সহ সরকারি, আধা সরকারি প্রতিষ্ঠানেও তালা খোলা হয়নি এ দিন। পার্বত্য পরিষদের সচিবালয়ও ছিল বন্ধ। চলেনি দূর পাল্লার যানবাহনও। তবে পাহাড় লাইনে ট্রেন চলাচল ছিল সম্পূর্ণ স্বভাবিক। বনধের আহ্বায়ক ট্রেনকে ছাড় দিয়েছিলেন। বনধ ঘিরে কোথাও কোনও অশান্তির খবর নেই।

বিল বাতিলের দাবি ছাড়াও কার্বি-আংলং এবং ডিমা হাসাওয়ে বোড়ো জনজাতিদের পাৰ্বত্য জনগোষ্ঠীর মৰ্যাদা দেওয়ার সরকারি সিদ্ধান্তের বিরোধিতাও রয়েছে তাদের দাবির মধ্যে। সংবিধানের ষষ্ঠ তফশিলির সংশোধনেরও বিরোধিতা করে তারা। রাজ্যের ছয় জনগোষ্ঠীকে জনজাতি করার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র, তাতেও তাদের আপত্তি।
জেলা বিভাজন ইস্যুতে ডিমাসা ও অডিমাসা জনজাতির মধ্যে চরম বিরোধিতা থাকলেও এই সব ইস্যুতে তারা সবাই জোট বেঁধেছে। সোমবার বনধ ডেকেছিল ডিমাসা স্টুডেন্টস্ ইউনিয়ন, কার্বি স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, কুকি স্টুডেন্টস্  অর্গানাইজেশন, মার স্টুডেন্টস্ অ্যাসোয়িশেন ও হিলস ট্রাইবস স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন।
English text here

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!
Close
Close

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker